আসুস ভিভোবুক ১৫ : প্রযুক্তিতে আভিজাত্য

আসুস ভিভোবুক ১৫ (আসুস এক্স৫৪২ইউকিউ এবং এক্স৫৪২ইউআর এই দুটি মডেলের পাওয়া যাচ্ছে )- কে বলা যায় সৌন্দর্য ও পারফরম্যান্স-এর অপরূপ সংমিশ্রণ। ৭ম প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই৭,কোর আই৫,কিনবা কোর আই ৩ প্রসেসর; ৪ থেকে ৮ জিবি র‌্যাম আর এনভিডিয়া জিফোর্স ৯৩০/৯৪০ এমএক্স গ্রাফিক্স-এর শক্তিতে বলীয়ান আসুস ভিভোবুকটিতে থাকছে ১৫ ইঞ্ছির ফুল এইচডি ডিসপ্লে। প্রাত্যহিক নানা কাজের সাথে বিনোদনের চাহিদাকে মেটানোর জন্য এ মুহূর্তে এর চাইতে আদর্শ কম্পিউটরের কথা চিন্তা করা কঠিন।

ডিজাইন: প্রাণবন্ত রং আর অসাধারণ স্পান ফিনিশ-এর সুবাদে এ কম্পিউটারটি ডিজাইনের ক্ষেত্রে নজরকাড়া ব্যতিক্রমধর্মীতা নিয়ে এসেছে। এটি গোল্ডেন এবং ডার্ক গ্রে এই দুটি রঙে ব্যবহারকারীদের নজর কেড়েছে।

পারফরম্যান্স: এর পারফরম্যান্সকে এক কথায় অসাধারণ বলতে হবে। ইন্টেল এর ৭ম প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই৭ প্রসেসরের শক্তিতে শক্তিমান এই কম্পিউটারটি মসৃণ ভিজ্যুয়াল আর অসাধারণ গেমিং অভিজ্ঞতা উপহার দেবে নিশ্চিত। ডুয়াল ব্যান্ড ৮০২.১১ধপ ওয়াই-ফাই-এর সুবাদে ব্যবহারকারী পাবেন সুপার-ফাস্ট অনলাইন পারফরম্যান্স-এর নিশ্চয়তা।

স্টোরেজ: এই কম্পিউটারটির বিপুল স্টোরেজ সামর্থ্য একে ভিন্ন এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে। ১ টেরাবাইট হার্ড ডিস্ক ড্রাইভের বিশাল-বিপুল ধারণক্ষমতা একে প্রতিদ্বন্দ্বিদের তুলনায় অনেকটাই এগিয়ে রাখবে। বড় আকারের মুভি, মিউজিক লাইব্রেরি আর ছবির অ্যালবামের জন্য ব্যবহার করুন এইচডিডি। ব্যস, ফার্স্ট ক্লাস কম্পিউটিং অভিজ্ঞতার জন্য আর কী চাই!

ব্যাটারি: ব্যাটারি পুরোপুরিভাবে চার্জ হয়ে যাবার পরও ল্যাপটপকে প্লাগড ইন করে রাখা ব্যাটারির আয়ুষ্কালকে কমিয়ে দিতে পারে। অভ্যন্তরীণভাবে গ্যাস জমে যাবার কারণে ব্যাটারি ফুলে যাওয়াসহ ল্যাপটপেরও ক্ষতি হতে পারে। এই সমস্যা সমাধানের জন্য এই ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে আসুস ব্যাটারি হেলথ চার্জিং টেকনোলজি। এই অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সুবাদে চার্জিং-এর অবস্থাকে ৬০%, ৮০% ও ১০০% হিসেবে সেট করে দিতে পারবেন আর এভাবেই ব্যাটারির দীর্ঘায়ু নিশ্চিত করাসহ battery swelling-এর সমস্যাকেও পরিহার করতে পারবেন। এছাড়াও এর লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারির আয়ুষ্কাল প্রথাগত লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির তুলনায় তিন গুণ বেশি। আসুস ফার্স্ট চার্জ টেকনোলজির কল্যাণে মাত্র ৪৯ মিনিটে একটি নি¤œ চার্জসম্পন্ন ব্যাটারিকে ৬০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জে নিয়ে যাওয়া যায়।

ভিডিও লিঙ্ক:-

ইন্টারফেস: রিভার্সিবল ইউএসবি টাইপ-সি কানেক্টসমৃদ্ধ ইউএসবি ৩.১ পোর্ট-এর কারণে যে কোনো ডিভাইস কানেক্ট করা হয়ে গেছে পানির মত সহজ। ইউএসবি ৩.১-এ ৫ জিবিপিএস পর্যন্ত ডাটা ট্রান্সফার স্পিড পাওয়া যাবে, যা ইউএসবি ২.০ কানেকশনের তুলনায় ১০ গুণ দ্রুতগতির। ফলে ২ জিবি আকারের একটি মুভিকে মাত্র ২ সেকেন্ড ট্রান্সফার কার যাবে। এছাড়াও এতে আছে এইচডিএমআই ও ভিজিএ পোর্ট, সাথে থ্রি-ইন-ওয়ান এসডি/এসডিএইচসি/এসডিএক্সসি কার্ড রিডার। ফলে নানা ধরনের পেরিফেরাল, ডিসপ্লে ও প্রজেক্টরের জন্য থাকছে ঝামেলামুক্ত কমপ্যাটিবিলিটি।

ভিজ্যুয়াল: আসুস-এর অসাধারণ ভিজ্যুয়াল অপটিমাইজেশন টেকনোলজির সুবাদে যে কোনো ধরনের কনটেন্ট-এর জন্যই পাবেন সেরা ভিজুয়্যালের নিশ্চয়তা। এতে আছে চারটি ডিসপ্লে মোড, যেগুলোতে একটি মাত্র ক্লিকে অ্যাকসেস নেয়া যাবে। প্রাত্যহিক কাজের জন্য আদর্শ হচ্ছে নরমাল মোড। ভিভিড মোডের কাজ হচ্ছে অসাধারণ ভিডিও ও স্থির চিত্র প্রদান করা। আই কেয়ার মোড ব্লু-লাইট লেভেলকে নিম্নগামী করে চোখকে আরাম দেয়। আর ম্যানুয়াল মোড ব্যবহার করে পারসোনালাইজড কালার অ্যাডজাস্টমেন্ট করা সম্ভব।

মডেল স্ক্রিন প্রসেসর র‍্যাম হার্ডডিস্ক ভি জি এ রং অপারেটিং সিস্টেম মূল্য
এক্স ৫৫২ ইউআর ১৫.৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি কোর আই ৩ ২.৪০ গিগা হার্টজ ৪ গিগাবাইট, ডিডিআর ৪ ১ ট্যারাবাইট এনভিডিয়া জি্টি ৯৩০ এমএক্স ২ গিগাবাইট ডার্ক গ্রে এন্ডলেস ৪২০০০
এক্স ৫৫২ ইউআর ১৫.৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি কোর আই ৩ ২.৪০ গিগা হার্টজ ৪ গিগাবাইট, ডিডিআর ৪ ১ ট্যারাবাইট এনভিডিয়া জি্টি ৯৩০ এমএক্স ২ গিগাবাইট গোল্ডেন এন্ডলেস ৪২০০০
এক্স ৫৫২ ইউকিউ ১৫.৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি কোর আই ৫ ২.৫০ গিগা হার্টজ ৮ গিগাবাইট, ডিডিআর ৪ ১ ট্যারাবাইট এনভিডিয়া জি্টি ৯৪০ এমএক্স ২ গিগাবাইট ডার্ক গ্রে এন্ডলেস ৪২০০০
এক্স ৫৫২ ইউকিউ ১৫.৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি কোর আই ৭ ২.৭০ গিগা হার্টজ ৮ গিগাবাইট, ডিডিআর ৪ ১ ট্যারাবাইট এনভিডিয়া জি্টি ৯৪০ এমএক্স ২ গিগাবাইট গোল্ডেন এন্ডলেস ৪২০০০

এছাড়াও আসুস ভিভোবুক ১৫-তে ব্যবহার করা হয়েছে ট্রু-টু-লাইফ ভিডিও টেকনোলজি, যা যে কোনো ভিডিওকে করে তুলবে বিস্ময়কর রকমের প্রাণবন্ত। এতে শক্তি জোগায় আসুস সনিকমাস্টার, যেটি হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার আর অডিও টিউনিং-এর এক দারুণ সমন্বয়, যা ব্যবহারকারীকে দেবে ব্যতিক্রমী এক অডিও অভিজ্ঞতা। প্রফেশনাল গ্রেড কোডেক-এর সুবাদে পাওয়া যাবে নির্ভুল অডিও এনকোডিং ও ডিকোডিং। কম্পিউটারটির আরেকটি বৈশিষ্ট্য হল আসুস অডিও উইজার্ড, যা বস্তুত একটি শক্তিশালী সফটওয়্যার স্যুইট-যার কাজ হচ্ছে যে কোনো ধরনের কনটেন্ট-এর জন্য আদর্শ অডিও ব্যালান্স নিশ্চিত করা। আসুস আইসকুল ফিচারের কল্যাণে এটি থাকবে সুপার-কুল,যা ব্যবহারকারীকে দেবে ভিন্নধর্মী কম্পিউটিং অভিজ্ঞতা।

সব মিলিয়ে আসুস ভিভোবুক ১৫ দেবে আনন্দময় আর অভিজাত কম্পিউটিং অভিজ্ঞতা। আসুস ভিভোবুক ১৫-এর বৈচিত্র্যময় ভুবনে সবাইকে স্বাগতম। আরো জানতে ভিজিট করুন: www.globalbrand.com.bd 

Golam Dustogir Touhid

Please Share This Post.