আপনার সিমটি ফোরজি তো?

গ্রাহকদের ফোরজি সেবা দেয়ার জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) মোবাইল অপারেটরদের কাছে আজ সন্ধ্যায় লাইসেন্স হস্তান্তর করবে। এরপর অপারেটরগুলো ফোরজি নেটওয়ার্ক চালুর ঘোষণা দেবে। ইতোমধ্যে গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংক লাইসেন্স পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ফোরজি চালুর ঘোষণা দিয়েছে।

মোবাইল ফোনে ফোরজি নেটওয়ার্ক সুবিধা পেতে চাইলে প্রথমেই আপনার সিমটি ফোরজি কি না সেটা জানতে হবে। যদি ফোরজি সিম না হয় তবে সংশ্লিষ্ট অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে থ্রিজি সিম পরিবর্তন করে আনতে হবে। চাইলে ঘরে বসেইও সিম পরিবর্তন করতে পারবেন। এমন সুবিধাও দিচ্ছি একটি অপারেটর।

ফোরজি সুবিধা পেতে হলে কেবলমাত্র ফোরজি সিম হলেই হবে না। এজন্য চাই ফোরজি নেটওয়ার্ক এনাবল হ্যান্ডসেট। গ্রামীণফোন গতকাল ফোরজি এনাবল দুইটি হ্যান্ডসেট এনেছে। একটির মূল্য ৪৪৪৪ টাকা। বাজারে এটিই সবচেয়ে কম দামের ফোরজি ফোন।

দেশের টেলিকম অপারেটরগুলো গত কয়েকমাস ধরে ফোরজি এনাবল সিম বিক্রি করে আসছে। তাই আপনার সিমটি ফোরজি কি না তা ঘরে বসেই পরখ করে দেখার সুযোগ রয়েছে।

আপনি যদি গ্রামীণফোনের গ্রাহক হন তবে মোবাইল ফোনে ডায়াল করুন *১২১*৩২৩২#। ফিরতি বার্তায় গ্রামীণফোন জানিয়ে দেবে আপনার সিমটি ফোরজি এনাবল কি না।

রবি গ্রাহকরা *১২৩*৪৪# ডায়াল করে ফোরজি সিমের তথ্য পাবেন। এছাড়াও বাংলালিংকের গ্রাহকেরা মোবাইল ফোন থেকে 4G লিখে ৫০০০ নম্বরে এসএমএস করলেই জানতে পারবেন সিম সম্পর্কিত তথ্য।

যদি টেলিটক গ্রাহকদের ঘরে বসে ফোরজি সিমের তথ্য জানার সুযোগ নেই। তারা এখনো এই ধরনের সেবা চালু করেনি।

গ্রামীণফোন গতকাল জানিয়েছিল, শুরুতে কেবলমাত্র ঢাকা শহরেই ফোরজি নেটওয়ার্ক বিস্তৃত করবে। পর্যায়ক্রমে বিভাগীয় শহরগুলোতেও ফোরজি নেটওয়ার্ক পৌঁছাবে। যদি বাংলালিংক দাবি করছে আজ লাইসেন্স পাওয়ার পরপরই ঢাকাসহ চট্টগ্রাম, খুলনা এবং সিলেটে একই সঙ্গে ফোরজি নেটওয়ার্ক চালু করা হবে।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক