আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু করলো এডুটিউববিডি

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি  মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশের সর্বপ্রথম শিক্ষা বিষয়ক কনটেন্ট শেয়ারিং পোর্টাল edutubebd.com এর উদ্বোধন করেছেন। বাংলাদেশের ছাত্র-ছাত্রীদের কথা মাথায় রেখে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এথিক্স অ্যাড্ভান্সড টেকনোলজি লিঃ (ইএটিএল) এই পোর্টালটির উন্নয়ন করেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি ও এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মিসেস নীলুফার আহমেদ এবং বাংলাদেশ জাতীয় শিক্ষা ক্রম ও পাঠ্য পুস্তক বোর্ডের চেয়ারমান (দায়িত্ব-প্রাপ্ত) অধ্যাপক ডঃ  ইনামুল হক সিদ্দিকী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইএটিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চেয়ারম্যান জনাব এম এ মুবিন খান।

সাম্প্রতিক সময়ে শিক্ষার্থীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় এক প্রতিষ্ঠানের নাম এথিক্স অ্যাড্ভান্সড টেকনোলজি লিমিটেড (ইএটিএল/)। ইএটিএল মোবাইল অ্যাপ্স ও ডিজিটাল কনটেন্ট উন্নয়নের উপর কয়েক বছর ধরে নানারকম কাজ ও গবেষনা করেছে। এর ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত দেশের একমাত্র শিক্ষা বিষয়ক কন্টেন্ট শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম edutubebd.com শুরু করেছে। এই পোর্টালের মাধ্যমে দেশের যে কোন পর্যায়ের শিক্ষার্থী তার যাবতীয় শিক্ষা বিষয়ক নোট, উপকরণ, লেকচার ইত্যাদি যে কোন ফরম্যাটে আপলোড এবং শেয়ার করতে পারবে।

জ্ঞান ছড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমেই আরও শক্তিশালী হয়ে উঠে – মূলমন্ত্রটি সবার মাঝে প্রচার করার উদ্দেশ্য নিয়েই ইএটিএল এই কার্যক্রম শুরু করেছে। বাংলাদেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শহরাঞ্চলের সচ্ছল পরিবারের ছেলেমেয়েরাই ভালমানের শিক্ষা উপকরণ পেয়ে থাকে, যা তাদের জ্ঞান ও প্রতিভাকে আরো উন্নত ও বিকশিত করে। শহরাঞ্চলে বর্তমানে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ক্লাসে উপস্থিত হয়ে লেকচার নেয় অথবা তারা গৃহশিক্ষকের থেকে নোট পায় এবং  কখনও কখনও তারা  ইমেল বা ফ্ল্যাশ ড্রাইভের মাধ্যমে এগুলো অন্য শিক্ষার্থীদের সাথে শেয়ার করে। বই খাতা ক্লাস লেকচার নোট আদান প্রদান হয় শুধু মাত্র শিক্ষার্থীদের ঘনিষ্টদের মধ্যে এবং নূতন শ্রেণীতে উঠার আগ পর্যন্ত এটি চলতে থাকে। যদি শিক্ষার্থীরা এই উপকরন গুলো অন্যদের সাথে শেয়ার করে, যারা প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়ার সুযোগ থেকে বঞ্চিত অথবা একটা টেস্ট পেপারকেনার সামর্থ্য যাদের নেই তারা দরকারি ম্যাটেরিয়ালগুলো এক ক্লিকে এখান থেকে পেয়ে যাবে।

 edutubebd.com পোর্টালে যে কেউ একাউন্ট খুলতে পারেন বা বিনামূল্যে সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। পরবর্তীতে যে কোনো ছাত্র, শিক্ষক, বা অভিভাবকরা তাঁদের শিক্ষা উপকরণ আপলোড করতে লগইন করতে পারেন এবং যেকোনো কনটেন্ট ডাউনলোড করতে পারেন। শিক্ষাবিষয়ক অন্যান্য পোর্টালগুলো মাইক্রো-লেকচারগুলো ইউটিউব ভিডিও আকারে প্রকাশ করে, কিন্তু বফঁঃঁনবনফ-তে মাইক্রো-লেকচারের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের জন্য অনেক অনুশীলনী ও টুলস্ থাকবে। শিক্ষকদের জন্য আলাদা নেটওয়ার্ক থাকবে যেখানে তাঁরা চাইলেই তাদের লেকচার আপলোড করতে পারবেন এবং শিক্ষার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমেই শিখতে পারবে। পোর্টালে কন্টেন্ট যাচাই-বাছাই করে ওয়েবসাইটে আপ করা হবে যা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লাইভ দেখা যাবে। কোন নূতন শিক্ষার্থী তার পছন্দ মত কন্টেন্ট সার্চ বার দিয়ে খুঁজে নিতে পারে।

মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বলেন  edutubebd.com এর মতো উদ্যোগ বাংলাদেশকে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং এই উদ্যোগ শহর ও গ্রাম অঞ্চলের মধ্যে শিক্ষা সুবিধা প্রাপ্তির বিভেদ কমাতে সাহায্য করবে। তিনি জানান তাঁর মন্ত্রণালয় মাধ্যমিক ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি জনাব এম এ মুবিন খান উপস্থিত সবাইকে  edutubebd.com তে কনটেন্ট আপলোড করতে আহবান জানান। অভ্যাগত অতিথি ও মিডিয়া কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি সভা শেষ করেন।

সিনিউজভয়েস/ডেক্স

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।