আইএসপিএবির প্রক্রিয়াধীন কাজগুলো বাস্তবায়ন করতে লড়বে ‘’টিম ইউনাইটেড’’

আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশনের নতুন মেয়াদ ২০১৯-২০ থেকে ২০২০-২১ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রার্থীরা। তারই অংশ হিসেবে বর্তমান কমিটির সাতজন সদস্যকে নিয়ে নয় সদস্যের প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে ‘’টিম ইউনাইটেড’’

টিম ইউনাইটেড’ নামের এই প্যানেলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন আইএসপিএবির বর্তমান সভাপতি ও আম্বার আইটির প্রধান নির্বাহী আমিনুল হাকিম। এছাড়াও পুরনোদের মধ্যে এই প্যানেলে রয়েছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক-সহ শুভ্র সরকার, রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ, কামাল হোসেন, মইন উদ্দিন আহমেদ, ও খন্দকার মুহাম্মদ আরিফ। আর নতুন ২ জন হলেন চট্টগ্রামের সিটিজি টেলিকমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহিন আনোয়ার ও ঢাকার কেএস নেওয়ার্কের প্রধান নাজমুল হক ভুঁইয়া।

আমিনুল হাকিম সিনিউজকে বলেন, আমরা মুলত আইএসপিএবির প্রক্রিয়াধীন বড় বড় কাজগুলো বাস্তবায়ন করতে আবারও নির্বাচিত হতে কাজ শুরু করেছি। আমাদের বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পগুলো প্রথমত আইএসপি সেবাকে আইটি এ্যানাবল সার্ভিস হিসেবে অন্তরভুক্ত করতে অনেক আগে থেকে কাজ করে যাচ্ছি, আশা করছি আমরা নির্বাচিত হলে আগামী ১ বছরের মধ্যে কাজটা সম্পূর্ণভাবে সরকারের কাছ থেকে আদায় করে নিতে পারবো। তাতে আমাদের সারা বাংলাদেশের সকল আইএসপি প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যাপক উপকৃত হবে। দ্বিতীয়ত; আমরা নতুন এনটিটিএন জন্য একটা কনসোর্টিয়াম করেছি, যার মধ্যমে আমরা নির্বাচিত হলে নতুন আইআইজির লাইসেন্স চালু করাতে সক্ষম হবো। বিষয়টা মন্ত্রী ও তার মন্ত্রনালয়ের আলোচনাধীন রয়েছে। আর নতুন কেউ আসলে একাজগুলো সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করাও সম্ভবপর হবে না।

জেনারেল মেম্বার ক্যাটাগরি থেকে প্যানেলে এবার দাঁড়িয়েছেন ৯ জন। আগে ছিল ৭ জন। আইএসপিএবরি গঠনতন্ত্র সংশোধন করে ২ জন বাড়ানো হয়েছে। অ্যাসোসিয়েট মেম্বার ক্যাটাগরিতে ৪ জন প্রার্থী দেওয়ার সুযোগ থাকলেও টিম ইউনাইটেড এই ক্যাটাগরিতে প্যানেল থেকে কোনও প্রার্থী দিচ্ছে না।

তিনি জানান, দেশে আইএসপি লাইসেন্সের সংখ্যা বেড়ে গেছে। এনটিটিএন অপারেটরগুলোর একচেটিয়া ব্যবসা থেকে আইএসপি অপারেটরগুলোকে রক্ষার চেষ্টা করতে আমরা বদ্ধ পরিকর।  টিম ইউনাইটেড প্যানেল নির্বাচিত হলে আইএসপিএবির সদস্যদের স্বার্থ রক্ষা করা হবে। ব্যবসা যাতে পেশীশক্তির কব্জায় চলে না যায় সে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আর যা চলে গেছে তা সুস্থ ও মূল ধারায় ফিরিয়ে আনা হবে।

সিনিউজভয়েস/জিডিটি/মে২/১৯

Please Share This Post.