অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা নিল বিটিআরসি

২০১৮ সালের অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ২৬৬ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। ছয় বারের মত এই পরীক্ষার আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ টেলিযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

গত শনিবার সকালে ঢাকার রমনার আই ই বি ভবনে পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। দেড় ঘণ্টার পরীক্ষা শেষে বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক এবং তরঙ্গ বিভাগের মহাপরিচালক নাসিম পারভেজ সাংবাদিকদের অ্যামেচার রেডিও সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ে অবহিত করেন। এসময় বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, ‘অ্যামেচার রেডিও বা হ্যাম রেডিও অপারেটররা দুযোর্গকালে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী কাজে অংশ নেয়। এটি একটি শখ। দেশের অ্যামেচার রেডিও অপারেটর বাড়ানোর জন্য বিটিআরসি নিয়মিত পরীক্ষার আয়োজন করে আসছে।

তিনি জানান, এবছর অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস পরীক্ষার জন্য ৩০০ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেছিল। যাদের মধ্যে ২৯৯ জন পরীক্ষার্থীর আবেদন বৈধ ঘোষণা করা হয়। পরীক্ষায় বসেছিল ২৬৬ জন।

তরঙ্গ বিভাগের মহাপরিচালক নাসিম পারভেজ সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, দেশে অ্যামেচার রেডিও জনপ্রিয় করতে আগামীতে অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের প্রাথমিক লাইসেন্স এবং উচ্চতর লাইসেন্স প্রদান করা হতে পারে।এজন্য ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করা হবে।

নাসিম পারভেজ জানান, অ্যামেচার রেডিও পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস সার্টিফিকেট দেয়া হবে। পরবর্তীতে তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ‘কল সাইন’ এবং অ্যামেচার রেডিও লাইসেন্স প্রদান করা হবে। ১৯৯১ সালে সাবেক বাংলাদেশ তরঙ্গ ও বেতার বোর্ডের ১৮ তম সভায় দেশে প্রথম অ্যামেচার রেডিও সার্ভিস চালু করা হয়। ১৯৯৫ সালে প্রথম পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। এরপর ২০০৩, ২০০৮, ২০১৩ এবং সর্বশেষ ২০১৭ সালে অ্যামেচার সার্ভিস পরীক্ষা নিয়েছিল বিটিআরসি। ২০১৭ সালের পরীক্ষায় ২৫৪ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ১৭৭ জন কৃতকার্য হন।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি১০ডি/১৮

Please Share This Post.