অ্যাপস থেকেই ভালো আয় করা যাবে

তরুণ ডেভেলপারদের তৈরি অ্যাপস থেকে আয় করার অন্যতম উপায় অ্যাপস মনিটাইজেশন। আর এজন্য চাই স্ট্যাটেজি গ্রহণ। নানা উপায়ে অ্যাপস মনিটাইজেশন করা যায়। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইনারপারচেজ এবং অ্যাপসে অ্যাড প্লেস করা।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনে কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত বেসিস সফট এক্সপোর দ্বিতীয় দিন ২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার, বিকালে মিডিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত ‘মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন : মনিটাইজেশন ইজ দ্য কি’ শীর্ষক এক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।

বেসিস পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের সঞ্চালনায় সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন আইসিটি ডিভিশনের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুশার সাহা। সেমিনারে আলোচক হিসেবে ছিলেন স্কিলড ডেভেলপমেন্ট ফর মোবাইল গেম অ্যান্ড অ্যাপ্লিকেশনের প্রকল্প পরামর্শক ড. মোহাম্মদ জানে আলম, ড্রিম ৭১ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশাদ কবীর, অর্ক টেকনোলজি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাবিলা রহমান, চলো টেকনোলজিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেওয়ান শুভ, ৮ পিয়ার সলিউশন্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শাহজালাল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আইসিটি ডিভিশনের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার সাহা বলেন, ডেভেলপারদের এমন অ্যাপস তৈরি করতে হবে যা দেশিয় বাজারের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও রফতানি করে আয় করা সম্ভব হয়। ভালো অ্যাপস তৈরি করতে পারলে ক্রেতার অভাব হবে না। যারা এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিতে চান তারা আইসিটি বিভাগের এলআইসিটি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিতে পারেন। এছাড়াও শিগগিরই ইনোভেশন আইডিয়া প্রজেক্ট শুরু হচ্ছে। এই প্রজেক্টে নতুন আইডিয়া জমা দেয়া যাবে। তরুণদের অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট এবং অ্যাপস মনিটাইজেশনের জন্য সরকারের সব ধরনের সহযোগিতা রয়েছে।

স্কিলড ডেভেলপমেন্ট ফর মোবাইল গেম অ্যান্ড অ্যাপ্লিকেশনের প্রকল্প পরামর্শক ড. মোহাম্মদ জানে আলম রাবিদ বলেন, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন মনিটাইজেশনের ক্ষেত্রে তরুণদের রিসোর্স রিলেটেড সমস্যা আছে। এই সমস্যার সমাধানের জন্য সারা দেশে ৩৮ টি মোবাইল গেমস অ্যান্ড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট ল্যাব তৈরি হচ্ছে। এসব ল্যাবে যে কেউ এসে অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট করতে পারবেন। এছাড়াও ১৬ হাজার ১০০ জন তরুণদের মোবাইল গেমস অ্যান্ড অ্যাপস ডেভেলপমেন্টে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে সরকার। এরপর তাদেরকে দিয়ে ১০৫০টি অ্যাপস তৈরি করা হবে।

ড্রিম ৭১ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশাদ কবীর বলেন, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড গেমের বাজার বিলিয়ন ডলারের। এই বড় বাজারে প্রবেশ করতে হলে স্ট্যার্টেজি বিল্ড আপ করতে হবে। দেশের অ্যাপের মার্কেটের বড় অংশ বিদেশি কোম্পানির দখলে। অ্যাপস মনিটাইজেশনের জন্য মার্কেটিং টিম তৈরি করতে হবে। যারা স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক বাজার সম্প্রসারণে কাজ করবে।

অর্ক টেকনোলজি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাবিলা রহমান বলেন, বিভিন্নভাবে অ্যাপসের মনিটাইজেশন করা যেতে পারে। অ্যাপসে বিজ্ঞাপন দিয়েও আয় করা সম্ভব এছাড়াও ইনারপারচেজের মাধ্যমেও অ্যাপেও মনিটাইজ করা যেতে পারে। নতুন অ্যাপস ডেভেলপমেন্টকারীদের মনিটাইজেশন স্ট্যাটেজি তৈরি করতে হবে।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.